বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
লক্ষ্যে পৌঁছাতে একদিনের জন্যও পড়া বাদ দেইনি। সে জন্যই এ বছর কুমিল্লা মেডিকেল কলেজে চান্স পেয়ে গেলাম।
default-image

রিফাত জানালেন, মেডিকেল কলেজে ভর্তি ইচ্ছুকদের জন্য একাদশ শ্রেণির পাঠ্যবই পদার্থ, রসায়ন, জীববিজ্ঞান নিয়মিত পড়তে হবে। একদিনের জন্য ও পড়া বাদ দেওয়া যাবে না। নিয়মিত পড়া চালিয়ে যেতে হবে। এইচএসসি পাসের পর মডেল টেস্ট দেওয়া হলে আত্মবিশ্বাস (কনফিডেনস লেবেল) বাড়ে । সাধারণ জ্ঞানের জন্য যেকোনো একটি বই পুরো পড়তে হবে। একাধিক বই হলে তথ্য গুলিয়ে যেতে পারে। আর ইংরেজির প্রস্তুতির জন্য বেসিক জ্ঞান থাকা প্রয়োজন । আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর জন্য বিসিএস প্রশ্ন দেখা যেতে পারে। এইভাবে প্রস্তুতি নেওয়া যেতে পারে।

রিফাতের বাড়ি দিনাজপুরের হাকিমপুর পৌরসভার মধ্য বাসুদেবপুর (মাঠপাড়া) মহল্লায়। বাবা কৃষি শ্রমিক। থাকার বসত ঘর ছাড়া এক ছটাক জমি নেই। কষ্টের সংসার। এতে ঠিকমতো জুটতো না পরিবারের তিন বেলার খাবার। এর মধ্য দিয়েও রিফাত বিজ্ঞান শাখায় ২০১৯ সালে এসএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পান। সার্বিক বিবেচনা করে ব্র্যাক ব্যাংক-প্রথম আলো ট্রাস্ট অদম্য মেধাবী শিক্ষাবৃত্তি প্রাপ্ত হন। ২০২১ সালে হাকিমপুর সরকারি কলেজ থেকে এইচএসসিতে বিজ্ঞান বিভাগে জিপিএ-৫ পান। ধারাবাহিক সফলতার জন্য তাঁকে স্নাতক পর্যায়েও শিক্ষাবৃত্তি দেওয়া হবে।

অদম্য মেধাবী তহবিল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন