বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

মাদকাসক্ত ব্যক্তির মাদক ছাড়ার ইচ্ছা থাকতে হবে। চিকিৎসার প্রথম ধাপ পুনর্বাসন কেন্দ্রে থেকে মাদকাসক্ত ব্যক্তিকে চিকিৎসা করানো । চিকিৎসা শেষে কমপক্ষে দুই বছর যদি মাদক গ্রহণ না করে তবে ধরে নেওয়া যায় তিনি মাদকমুক্ত হয়েছেন। মাদকাসক্তির সঙ্গে মানসিক রোগের একটা সম্পর্ক আছে। মাদকাসক্ত ব্যক্তির মানসিক অনেকগুলো রোগের লক্ষণ দেখা যেতে পারে । আত্মহত্যা, বিষণ্নতা, ডিপ্রেশন, সিজোফ্রেনিয়া, কিংবা যেকোনো সহিংসতায় জড়িয়ে পড়তে পারে।

মাদকের পুনরাসক্তির ক্ষেত্রে কয়েকটি বিষয় খেয়াল রাখতে হবে। তা হলো সময়: যেই সময়ে সে মাদক গ্রহণ করত সেই সময়ে সতর্ক থাকতে হবে। স্থান: যে জায়গায় মাদক গ্রহণ করত সেই জায়গা এড়িয়ে চলা। ব্যক্তি: যাদের সঙ্গে বসে মাদক গ্রহণ করত তাদের এড়িয়ে চলা।

মাদকাসক্ত হলে চিকিৎসা কোথায় করাব এর উত্তরে ডা.মো. জিল্লুর রহমান খান জানালেন, ‘রাজধানীর শেরেবাংলা নগর জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মনোরোগবিদ্যা বিভাগ, বহি:বিভাগ, কেন্দ্রীয় মাদকাসক্তি নিরাময় কেন্দ্রে মাদকাসক্তির চিকিৎসা হয়। এ ছাড়া সারা দেশের মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মনোরোগ বহি:বিভাগে যোগাযোগ করবেন।

মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন