default-image

আমি কাজী সজীব আহমেদ। নারায়ণগঞ্জে সাব ইন্সপেক্টর হিসেবে কর্মরত। চাকরির সুবাদে মানুষের সেবা করার সুযোগ পেয়েছি। থানায় অনেকে এসে কেউ কেউ ঘাবড়ে যান। মানুষের ওই কষ্ট কাছ থেকে দেখে সমাধা করার চেষ্টা করি। পুলিশে চাকরির সুবাদে সামাজিকভাবে মর্যাদাও বেড়েছে।

আমরা যারা প্রথম আলো ট্রাস্টের অদম্য মেধাবী শিক্ষাবৃত্তি পেয়েছি, আমাদের নিয়ে একটা অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন করা হয়েছে। অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি হিসেবে আমাদের দায়িত্ব অনেক। সবাই মিলে একটা নেটওয়ার্ক গড়ে তুলতে চাই। যেন একে অপরের বিপদে সাহায্য করতে পারি, পাশে দাঁড়াতে পারি।

বিজ্ঞাপন

ছোটবেলা থেকে অনেক কষ্ট করে পড়ালেখা করেছি বলেই একটা আত্মবিশ্বাস ছিল। প্রথম আলো ট্রাস্টের অদম্য মেধাবী শিক্ষাবৃত্তি পেয়েছি। ভালো ছাত্র ছিলাম বলে স্কুলেও শিক্ষকেরা আমাকে বিনা মূল্যে প্রাইভেট পড়াতেন। বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে এসে টিউশন করে নিজের খরচ চালিয়েছি। সব সময় আত্মবিশ্বাস ছিল, একটা না একটা কিছু হবে।

আমার বাড়ি মুন্সিগঞ্জে। শুধু পরিবারে নয়, আত্মীয়স্বজনদের মধ্যেও আমিই সবচেয়ে বেশি পড়ালেখা করেছি। তাই সবার আমার প্রতি একটা প্রত্যাশা ছিল। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজিতে স্নাতকোত্তর শেষ করার পরপরই ব্যাংকে চাকরি নিই। কিন্তু আমার লক্ষ্য ছিল ভিন্ন। ব্যাংকের চাকরির পাশাপাশি বিভিন্ন সরকারি চাকরির পরীক্ষা দিচ্ছিলাম। সাব ইন্সপেক্টর হিসেবে যখন টিকে গেলাম, তখন আর দ্বিতীয়বার ভাবিনি।

প্রথম আলো ট্রাস্ট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন