রোহানের মা শিউলী বেগম স্থানীয় একটি এনজিও’র মাধ্যমে সেলাই প্রশিক্ষণ নিয়েছেন। কিন্তু তাঁর অল্প আয়ে ছেলের পড়াশোনা খরচ ও সংসার চালানো অনেক কষ্টকর হয়ে যায়। তাঁর দুই ছেলের মধ্যে ছোট কামরুজ্জামান রোহান। পরে তাঁর সার্বিক বিষয় বিবেচনায় রোহানকে ৪র্থ শ্রেণিতে পড়া অবস্থায় শিক্ষাবৃত্তির আওতায় নিয়ে আসে প্রথম আলো ট্রাস্ট।

কামরুজ্জামান রোহান জানালেন ‘ ঈদের উপহার পেয়ে ভীষণ আনন্দিত। ধন্যবাদ প্রথম আলো ট্রাস্টকে। আমার পাশে থেকে আমাকে পড়াশোনার জন্য সহযোগিতা করার জন্য। এর ফলে আমি ভালোভাবে পড়াশোনা করতে পারছি।’

সাভার সহায়তা তহবিল থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন