বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, ‘মূলত এটি একটি ক্রনিক রিল্যাপ্সিং ব্রেইন ডিজিজ বা দীর্ঘ মেয়াদি শারীরিক ও মানসিক সমস্যা যা মাদকের ওপর নির্ভরশীলতার কারণেই হয়ে থাকে। কেন মানুষ মাদক গ্রহণ করে, এক কথায় এর উত্তর দেবার কোণ সুযোগ নাই। নানা কারণে মানুষ মাদক গ্রহণ করে। তার বেড়ে ওঠা, শৈশব থেকে তার ব্যক্তিত্বের বিকাশ যদি কোনো কারণে বাধাগ্রস্ত হয়, তখন সে যেকোনো ধরনের মাদক গ্রহণের দিকে ঝুঁকে পড়তে পারে । অনেকে কৌতূহল থেকে মাদক গ্রহণ শুরু করে। কখনো কখনো বন্ধুদের চাপ বা পারিপার্শ্বিকতার চাপে কেউ মাদক গ্রহণ করে। আরেকটি বাস্তবতা আমাদের মেনে নিতে হবে, সেটি হলো সহজলভ্যতা। মাদকের সহজলভ্যতার কারণে একজন মাদক গ্রহণ করেন এবং মাদক গ্রহণ করতে করতেই একজন মাদকের প্রতি আসক্ত হয়ে পড়েন। আর একটি হলো, মাদক সম্পর্কে আমাদের ভ্রান্ত দৃষ্টিভঙ্গি। সমাজের মানুষের নিজস্ব ধারণা, মাদক গ্রহণকারীর ধারণা, কখনো কখনো গল্প, উপন্যাস, নাটকেও মাদককে মহিমান্বিত করে প্রেমে বা জীবনের যেকোনো ব্যর্থতায় মাদক গ্রহণ করলেই মুক্তি সম্ভব। সেখান থেকেও মানুষ প্রভাবিত হয়। সবকিছু মিলে একটি নয়, একাধিক কারণে মানুষ মাদক গ্রহণ করতে পারে। এবং মাদক গ্রহণ করতে করতে একসময় সে মাদকাসক্ত হয়ে পড়তে পারে।’

মাদকবিরোধী আন্দোলন থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন