বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

গুড়িহারী-কামদেবপুর আলোর পাঠশালার প্রধান শিক্ষক মো. নূর আলম বলেন, এ স্কুলের স্লোগান হচ্ছে শিক্ষা হবে আনন্দদায়ক। আর আনন্দদায়ক শিক্ষার পরিবেশ সৃষ্টির মূল শর্তই হচ্ছে শিক্ষার্থীর শারীরিক ও মানসিক প্রশান্তি। ফুল হচ্ছে সুন্দরের প্রতীক। কিছু ফুল আছে যাদের রাতে ফুটতে দেখা যায়। আরও মজার বিষয় হচ্ছে, রাতে ফোঁটা ফুল সাধারণত সাদা হয় আবার এ ফুলের বাহারি সুগন্ধও রয়েছে। সবুজ পাতার ফাঁকে ফাঁকে উঁকি দিচ্ছে সুগন্ধি সব ফুল। কামিনী, গন্ধরাজ, শিউলি ফুলের সুবাসে মুখরিত স্কুলের চারপাশ। যার কারণে গ্রামের ছোট বড় সকলে বিদ্যালয় ফুল বাগানের পাশে বসে সময় কাটায় কেউ বিকেলে আবার কেউ সন্ধ্যা থেকে মাঝ রাত পর্যন্ত।

বিদ্যালয়ের ফুল বাগান দেখে গুড়িহারী গ্রামের আব্দুল মোত্তালিব বলেন, ‘আমার কাছে বিদ্যালয়ের আকর্ষণীয় দিকটি হচ্ছে ফুলের বাগান। যখন সব গাছে ফুল ফোটে তখন দেখতে খুব ভালো লাগে। আমি স্কুলের দিকে আসলে একবার হলেও বাগানের দিকে যাই এবং ফুলগুলো দেখি। আর বাগানের পাশে বসে কিছুটা সময় কাটাই।’

default-image

বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী জহুরা খাতুন বলে, ‘আমি প্রতিদিন স্কুল শুরু হওয়ার আধা ঘণ্টা আগে এসে বান্ধবীদের নিয়ে বাগানের সব গাছে পানি দেই, গাছের গোড়া পরিষ্কার করি। শিউলি ফুল দেখতে আমার খুব ভালো লাগে। বাগানের সব ফুল ফুটলে মনটা আনন্দে ভরে যায়।’

বাংলাদেশের প্রত্যন্ত এলাকায় যেখানে বহুদিন শিক্ষার আলো পৌঁছায়নি এ রকম অবহেলিত কয়েকটি এলাকায় শিক্ষার আলো পৌঁছে দিচ্ছে প্রথম আলো ট্রাস্ট। সামিট গ্রুপের আর্থিক সহায়তায় প্রথম আলো ট্রাস্ট গুড়িহারি কামদেবপুর আলোর পাঠশালাসহ ৬টি স্কুল পরিচালনা করছে।

মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন