বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন
default-image

সেবা পেয়ে গ্রাম্য মোড়ল মাধব কোল সরেন বলেন,‘ হামারঘে মানুষজন অসুখ-বিসুখের ব্যাপারে একদম উদাসীন থাকে। সহজে ওষুধ খাইতে চাহে না। কিনাতো আরও দূরের কথা। টাকা খরচ কইরা ডাক্তারের কাছেও যাইতে চাহে না। আইজ এখ্যানে হামরা বিনা টাকাতে ডাক্তার দেখাইতে পাইনু এটা ম্যালা বড় পাওয়া।’

আসনি হাসদা বলেন, ‘হামারঘে খুব গরিব মানুষ। চিকিৎসার লাইগা টাকা খরচ হোইবে, তাই ডাক্তার দেখাইতে পারি না। আইজ হামরাকে বিনিপয়সায় ডাক্তারবাবু দেখলো আর ওষুধ দিলো। এতে হামারঘে ম্যালা উপকার হোইলো। বিনা টাকাতে সেবা দিব্যার লাইগ্যা ডাক্তারবাবুকে ধন্যবাদ।’

চিকিৎসা শিবিরের উদ্বোধন করেন বাবুডাইং আলোর পাঠশালার অবসরপ্রাপ্ত প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক কানাই চন্দ্র দাস।

default-image

সংগঠন ‘সম্প্রীতি’র সভাপতি নাহিদুল হক বলেন, আমরা নানা সমাজসেবামূলক কাজ করে থাকি। এ এলাকাটা যেহেতু সুবিধাবঞ্চিত তাই আমরা এখানে ফ্রি চিকিৎসাসেবা দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছি।

চিকিৎসক মো. মারুফ হাসান বলেন, সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকে আমাদের এগিয়ে আসতে হবে। সেই লক্ষ্য থেকে এই মানুষদের কাছে আসা। তাঁদের স্বাস্থ্য সচেতন করতে উদ্বুদ্ধ করেছি। আশা করি, প্রতি মাসে একবার হলেও এ সকল মানুষের মাঝে এসে একদিন করে চিকিৎসাসেবা দিয়ে যাব।

বাংলাদেশের প্রত্যন্ত এলাকায় যেখানে বহুদিন শিক্ষার আলো পৌঁছায়নি এ রকম অবহেলিত কয়েকটি এলাকায় শিক্ষার আলো পৌঁছে দিচ্ছে প্রথম আলো ট্রাস্ট। সামিট গ্রুপের আর্থিক সহায়তায় প্রথম আলো ট্রাস্ট বাবু ডাইং আলোর পাঠশালাসহ ৬টি স্কুল পরিচালনা করছে।

মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন