বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রথম আলো চরের বাসিন্দা আব্দুস সোবহান বলেন, ’উপজেলা পর্যায়ে বিভিন্ন টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করে প্রশংসা কুড়িয়েছে আলোর পাঠশালা ফুটবল দল। আলোর পাঠশালার এমন সাফল্যে আমরা এলাকাবাসী অত্যন্ত আনন্দিত। প্রত্যন্ত চর এলাকার এই ফুটবল দল একদিন বিভাগীয় পর্যায়েও প্রতিনিধিত্ব করবে।’

বাংলাদেশের প্রত্যন্ত এলাকায় যেখানে বহুদিন শিক্ষার আলো পৌঁছায়নি এ রকম অবহেলিত কয়েকটি এলাকায় শিক্ষার আলো পৌঁছে দিচ্ছে প্রথম আলো ট্রাস্ট। সামিট গ্রুপের আর্থিক সহায়তায় প্রথম আলো ট্রাস্ট কুড়িগ্রামের প্রথম আলো চর আলোর পাঠশালাসহ মোট ৬টি স্কুল পরিচালনা করছে।

মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন