default-image

জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের সাবেক পরিচালক অধ্যাপক মোহিত কামাল বলেছেন, মাদকাসক্তি একটা মানসিক রোগ। মানসিক রোগীকে বাড়িতে রেখে চিকিৎসা করা যায় না, বরং নিরাময় কেন্দ্রের খোঁজখবর নিয়ে সেসব জায়গায় রেখে চিকিৎসা করা দরকার।

গতকাল সোমবার প্রথম আলো ট্রাস্টের মাদকবিরোধী পরামর্শ সভায় তিনি এ কথা বলেন। বিকেল চারটা থেকে আধা ঘণ্টা প্রথম আলোর ফেসবুক পেজে মাদকবিরোধী অনলাইন পরামর্শ সহায়তা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা সঞ্চালনা করেন প্রথম আলো ট্রাস্টের সমন্বয়কারী মাহবুবা সুলতানা। অনলাইনে মাদকবিরোধী পরামর্শ সহায়তা সভার এটি ছিল ১৫তম আয়োজন।

বিজ্ঞাপন

প্রিয়জন মাদকাসক্ত হলে কীভাবে বোঝা যাবে? এমন প্রশ্নের জবাবে অধ্যাপক মোহিত কামাল বলেন, ‘দেখতে হবে আপনার প্রিয়জন সন্তান ঠিকমতো পড়াশোনা করছে কি না, কার সঙ্গে মিশছে, নতুন কোনো আড্ডা বা বন্ধুর সঙ্গে সম্পর্ক হচ্ছে কি না, ক্লাস ঠিকমতো করছে কি না, বেশি রাত জাগছে কি না, টাকা–পয়সা চুরি করছে বা মিথ্যা কথা বলছে কি না।’

মোহিত কামাল আরও বলেন, মাদকাসক্তি নিরাময়যোগ্য। মাদকাসক্ত ব্যক্তির মাদক ছাড়ার ইচ্ছা থাকতে হবে। চিকিৎসার প্রথম ধাপ পুনর্বাসন কেন্দ্রে রেখে মাদকাসক্ত ব্যক্তিকে চিকিৎসা করানো। চিকিৎসা শেষে কমপক্ষে দুই বছর যদি মাদক গ্রহণ না করেন, তবে ধরে নেওয়া যায় তিনি মাদক মুক্ত হয়েছেন। মাদকাসক্তির সঙ্গে মানসিক রোগের একটা সম্পর্ক আছে। মাদকাসক্ত ব্যক্তির মানসিক অনেকগুলো রোগের লক্ষণ দেখা যেতে পারে।

প্রথম আলো ট্রাস্ট থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন